সোনাদিয়া ঝাউবাগান থেকে কুতুবদিয়ার জলদস্যু সম্রাট রমিজসহ আটক-৩ : অস্ত্র উদ্ধার

0
18

মহেশখালী সোনাদিয়ার ঝাউবাগান থেকে কুতুবদিয়ার জলদস্যু সম্রাট রমিজসহ ৩ জলদস্যুকে আটক করা হয়েছে।এসময় ২টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৫রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।
মহেশখালী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাগরে ফিশিং বোটে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে জলদস্যুদের
আটক করে। আটককৃতরা কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া ও চকরিয়া উপজেলার পেশাদার জলদস্যুবলে জানান পুলিশ ।
ঘটনাসুত্রে জানাযায়, আসন্ন ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে ২৬আগস্ট গভীর রাত্রে একদল পেশাদার জলদস্যুরা সাগরে আছআহরণ করে ফিরতি ফিশিং ট্রলার ডাকাতি উদ্দেশ্য কুতুবজোম ইউনিয়নের সোনাদিয়া নাগু মেম্বারের বাড়ীর পশ্চিম পার্শ্বের ঝাউবাগানে অস্ত্র মজুদ করে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে । এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মহেশখালী থানা পুলিশের এস আই শাওন দাশের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সোনাদিয়া দ্বীপে অভিযান পরিচালনা করে অভিযান কালে ঝাউবাগান থেকে ২টি অস্ত্র ৫রাউন্ড গুলি সহ ৩ জলদস্যুকে আটক করে।পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আরো ৭/৮জন জলদস্যু পালিয়ে যায়
বলে পুলিশ সুত্রে জানায়।
আটককৃত জলদস্যুরা হলেন মোঃ রমিজ আহাম্মদ (৪৮), পিতা-মৃত নজির আহাম্মদ, সাং-উত্তর ধুরং চুল্লার পাড়া, থানা-কুতুবদিয়া, ২। মোঃ আমিন (৫০), পিতা-মৃত ছিদ্দিক আহাম্মদ, সাং- চুল্লার পাড়া (উত্তর ধুরং), থানা-কুতুবদিয়া, ৩। মোঃ নবী (৪২), পিতা-ফজল আহাম্মদ, সাং-পালাকাটা,থানা-চকরিয়া।
মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার জানান, আটক জলদস্যুদের বিরুদ্ধে ১৮৭৮ সনের অস্ত্র আইনের ১৯-অ, ও ৩৯৯/৪০২দঃবিঃ আইনে পৃথক ২টি মামলা রুজু করা হয়েছে। পেশাদার জলদসুদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যহত রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here